গামছা বেঁধে ভাতিজিকে ধর্ষণ করলো চাচা

পিবিসি নিউজ: গাইবান্ধা সদর উপজেলার বল্লমঝাড় ইউনিয়নের খামার টেংগরজানী গ্রামে ষষ্ঠ শ্রেণির এক স্কুলছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে।

গতকাল মঙ্গলবার রাতে ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করেন তার চাচা লিয়ন মিয়া (২০)। নির্যাতিত ছাত্রীটি বর্তমানে গাইবান্ধা জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

ধর্ষিতার পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, প্রতিবেশী সাহেব মিয়ার ছেলে বখাটে লিয়ন মিয়া সম্পর্কে চাচা হলেও দীর্ঘদিন থেকে মেয়েটিকে বিয়ের প্রলোভনে বিভিন্ন সময় অনৈতিক প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। এ ব্যাপারে লিয়নের পরিবারকে একাধিকবার জানানো হলেও তারা কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। মঙ্গলবার রাতে বাড়িতে বিদ্যুৎ না থাকায় মেয়েটি পাশের বাড়িতে টেলিভিশন দেখতে যায়। রাত আটটার দিকে মেয়েটি টেলিভিশন দেখে বাড়িতে ফেরার সময় ঘরের বাইরে আগে থেকে ওৎ পেতে থাকা লিয়ন গামছা দিয়ে তার মুখ বেঁধে ফেলে পার্শ্ববর্তী একটি নির্মাণাধীন ঘরে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে। এ সময় তার চিৎকারে আশেপাশের লোকজন এগিয়ে এলে লিয়ন তাকে ভয়ভীতি ও জীবন নাশের হুমকি দিয়ে পালিয়ে যায়। পরে মেয়েটিকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে গাইবান্ধা জেলা হাসপাতালে ভর্তি করায় তার পরিবারের লোকজন। এ ঘটনায় নির্যাতিতা মেয়েটির বাবা বাদী হয়ে সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

এ ব্যাপারে গাইবান্ধা সদর থানার ওসি খান মো. শাহরিয়ার বলেন, অপরাধীকে গ্রেপ্তারের অভিযান শুরু করা হয়েছে। এ ছাড়া ভুক্তভোগী ওই ছাত্রীকে নিরাপত্তা দিতে হাসপাতালে মহিলা পুলিশ নিয়োগ করা হয়েছে।

We will be happy to hear your thoughts

Leave a reply

PBC24