নেতৃত্বের প্রতিযোগিতা থাকলেও দিন শেষে আমরা সকলেই বিএনপি। -মতিউর রহমান লিটু

পিবিসি নিউজ: গত ৩রা নভেম্বর (মঙ্গলবার) পটুয়াখালী জেলা বিএনপির মেয়াদোত্তীর্ণ নির্বাহী কমিটি বিলুপ্ত করে মো. আবদুর রশিদ চুন্নু মিয়াকে আহ্বায়ক এবং স্নেহাংশু সরকার কুট্টিকে সদস্য সচিব করে আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে। দলের মহাসচিব মির্জা ফকরুল ইসলাম আলমগীর নব গঠিত এই কমিটির অনুমোদন দেন।

সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও সাবেক বিমান বাহিনী প্রধান আলতাফ হোসেন চৌধুরীকে সরিয়ে প্রায় তিন দশক পরে সরকারি আমলাতান্ত্রিক রাজনীতির পরিবর্তন হওয়ায় স্বাভাবিকভাবে পটুয়াখালী জেলা বিএনপির তৃণমূলে উচ্ছাস, উদ্দীপনা দেখা দিয়েছে। এই উচ্ছাস এবং উদ্দীপনাকে কাজে লাগিয়ে দেশের স্বার্বভৌমত্ব ফেরাতে সবাই মিলে ঐক্যবদ্ধভাবে আন্দোলন, সংগ্রাম করতে হবে।

পছন্দ অপছন্দ দলীয় ফোরামে সীমাবদ্ধ রেখে সিনিয়র নেতাদের সম্মান বজায় রেখে সামনের দিকে এগিয়ে যেতে হবে। নতুন নেতৃত্ব গতিশীল করতে সকলের সহযোগিতার একান্ত প্রয়োজন, তাই সকলে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার বিশেষভাবে অনুরোধ করছি।
সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, এয়ারভাইস মার্শাল (অবঃ ) আলতাফ হোসেন চৌধুরী বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যকরী কমিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট এবং একজন সন্মানিত ব্যক্তি। পটুয়াখালী জেলার সকল নেতাকর্মীরা বরাবরের মতোই তাকে সম্মান করবেন এবং রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সহযোগিতা করবেন বলে সবার প্রতি আমার একান্ত ব্যক্তিগত অনুরোধ।
“সকলের তরে সকলে আমরা, প্রত্যেকে আমরা পরের তরে।”

বিএনপি আমাদের কারোরই ব্যক্তিগত সম্পত্তি নয়; বিএনপি, প্রেসিডেন্ট জিয়ার তৈরী স্বার্বভৌমত্ব রক্ষার, দেশ উন্নয়নের একমাত্র রাজনৈতিক দল।

আসুন সবাই মিলে পটুয়াখালী জেলা বিএনপির নতুন- পুরানা সকল নেতৃবৃন্দের উত্তরোত্তর সফলতা কামনা করি। আল্লাহ আমাদের সকলের মঙ্গল করুন। আমিন!

 

 

 

 

We will be happy to hear your thoughts

Leave a reply

PBC24