বিএনপি প্রার্থীর গাড়ি-মাইক ভাঙচুরের অভিযোগ

টাঙ্গাইলের কালিহাতী পৌরসভা নির্বাচনে গাড়ি ভাঙচুর ও প্রাণনাশের হুমকির অভিযোগ করেছেন বিএনপি মনোনীত প্রার্থী আলী আকবর জব্বার। আজ সোমবার সংবাদ সম্মেলন করে এ অভিযোগ করেন তিনি।

লিখিত বক্তব্যে তিনি জানান, পৌরসভার কামার্থী এলাকায় গণসংযোগ করে গতকাল রোববার রাত ৯টার দিকে কালিহাতী বাসস্ট্যান্ডে পৌঁছলে নৌকার প্রার্থী নুরুন্নবী সরকার গাড়ি দিয়ে ব্যারিকেড সৃষ্টি করেন। এ সময় তার সাথে থাকা বহিরাগত ২০-২৫ ব্যক্তি লাঠিসোটা নিয়ে হামলা চালিয়ে দুটি গাড়ি ভাংচুর করে। এতে তিনিসহ কালিহাতী উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক শুকুর মাহমুদ কাচের আঘাতে আহত হন।

আলী আকবর জব্বার আরও জানান, আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর সমর্থকরা ধানের শীষের অন্তত পাঁচটি মাইক ভাঙচুর করেছে। পৌরসভার বিভিন্ন স্থানে ধানের শীষের পোস্টার ছিঁড়ে ফেলা হয়েছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।
এ বিষয়ে কালিহাতী পৌরসভা নির্বাচনে রিটার্নিং অফিসার ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দেন বলে জানান তিনি।

তিনি আরও বলেন, আজ সোমবার দুপুরে আওয়ামী লীগের প্রার্থী নুরুন্নবী সরকার তার ক্যাম্পে এসে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াতে হুমকি দেন। এ ঘটনায় তিনি থানায় সাধারণ ডায়েরি করবেন বলে উল্লেখ করেন।

সংবাদ সম্মেলনে কালিহাতী উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক শুকুর মাহমুদ, পৌর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি হুরমুজ আলী, উপজেলা শ্রমিক দলের সাবেক সভাপতি আব্দুস সালাম, উপজেলা যুবদলের সাবেক সভাপতি শামীম আল মামুন মুকুলসহ বিএনপির বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

অভিযোগ অস্বীকার করে আওয়ামী লীগ প্রার্থী নুরুন্নবী সরকার জানান, প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর প্রচারণায় তিনি বা তার কোনো কর্মী-সমর্থক বাধা দিচ্ছেন না। গতকাল রোববার রাতে কালিহাতী বাসস্ট্যান্ডে জনগণের জটলা দেখে বিএনপি প্রার্থীর ছেলে রফিকুল ইসলাম লাঠি হাতে তাদের ধাওয়া করে। এ সময় তারা বিক্ষুব্ধ হয়ে গাড়ি ভাঙচুর করে থাকতে পারে। তবে তারা তার কর্মী-সমর্থক নয়।

এ প্রসঙ্গে কালিহাতী পৌরসভা নির্বাচনে রিটার্নিং অফিসার ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুমানা তানজিন অন্তরা জানান, নির্বাচনী প্রচারণায় বাধা ও গাড়ি ভাঙচুরের বিষয়ে বিএনপি প্রার্থীর পক্ষ থেকে লিখিত অভিযোগ পেয়েছেন। বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন।

We will be happy to hear your thoughts

Leave a reply

PBC24
Logo
Shopping cart